• Facebook
  • Twitter
  • YouTube
  • Instagram

Get Blogtog updates on the go

We dont Spam or play with your data

©2019 by Blogtog.

  • Blogtog

মুম্বাইয়ের ঝড় বৃষ্টি থেকে বাঁচাতে সাফাইকর্মীদের রেইনকোট ও গাম্বুট দিচ্ছে দশম শ্রেণীর সঞ্জনা


সঞ্জনা রানোয়াল

বাণিজ্যনগরীর সাফাইকর্মী ও ছেঁড়া কাপড়, ন্যাকড়া সংগ্রহকারীদের জীবনযাত্রার মান উন্নয়নে এগিয়ে এলেন এক দশম শ্রেণীর কিশোরী। মানবিকতার সাক্ষী রইলো ভারতবর্ষের বাণিজ্যিক রাজধানী মুম্বাই।


সঞ্জনা রানোয়াল। বোম্বে স্কটিশ স্কুলের দশম শ্রেণীর ছাত্রী। খাস মুম্বাইয়ের হতদরিদ্র, জীবন সংগ্রামে যুঝতে থাকা সমাজ কল্যাণের ক্ষেত্রে অপরিহার্য অঙ্গ মুম্বাই মহানগরীর এরমই জঞ্জাল ও সাফাইকর্মীদের খাদ্যদ্রব্য ও বিভিন্ন নিরাপত্তা সামগ্রী প্রদান করে তাদের সাহায্যার্থে এগিয়ে এসে মানবিক প্রবৃত্তির নির্মল জয়পতাকা তুলে ধরে এক অনন্য সুন্দর দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন ওই কিশোরী। কেরিয়ার তৈরির লক্ষ্য স্থির রেখে অবিচল পথে নিজ পরিকল্পনাসমূহকে বাস্তবায়িত করার এহেন সূচনালগ্নে সঞ্জনার মতো আর পাঁচজন সাধারণ ছাত্রছাত্রী যখন ভবিষ্যৎ তৈরিতে মনোনিবেশ করছে তখন সঞ্জনা যেন পড়াশোনা চালিয়ে যাওয়ার পাশাপাশি বর্তমান জীবনের স্রোতপথে বাঁচতে চেয়েছেন ভীষণভাবেই, ক্লান্তিহীনভাবে শহর জীবন পরিচ্ছন্ন রাখা অগ্রণী সৈনিকদের দুঃখ দুর্দশার ছিন্নমূল শরিক হয়ে তাদের জন্যে ইতিবাচক কিছু করতে চাওয়ার স্বপ্ন নিয়ে।


বাস্কেটবলপ্রেমী সঞ্জনা রানোয়াল সমাজ সেবার মহৎ উদ্দেশ্য নিয়ে বহুদিন থেকেই যুক্ত মুম্বাই কেন্দ্রীক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা 'ক্লিন-আপ ফাউন্ডেশন'-এর সাথে। যারা প্রতিষ্ঠাতা খোদ সঞ্জনার দাদা সিদ্ধার্থ রানোয়াল। এই সংস্থার সূচনা মূলত মুম্বাই নগরীর পিছিয়ে থাকা মানুষগুলো.. রাস্তায় রাস্তায় ন্যাকড়া সংগ্রহকারী, ম্যানহোল সাফাইকর্মী, জঞ্জাল ডাম্পিং কর্মীদের সাহায্যের খাতিরে। সঞ্জনার বক্তব্য অনুযায়ী, শহরের এই ধরণের কর্মীরাই আমাদের শহরকেন্দ্রীক সমাজের এক অবিচ্ছেদ্য অংশ। শহরকে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখার উদ্দেশ্যে প্রাণপাত করে চলেছেন, চূড়ান্ত অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে যৎসামান্য অর্থের বিনিময়ে ও বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই কোনোরকম নিরাপত্তা সামগ্রী ছাড়াই। তাদের এই সমস্যাদীর্ণ, অসুবিধে জর্জরিত জীবনের কথা জানতে পেরে সঞ্জনা ঠিক করেন, আগামীতে শহরের ছেঁড়া কাপড়, ন্যাকড়া সংগ্রহকারী, সাফাইকর্মীদের জন্য ক্লিন-আপ ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেবেন।


পড়ুনঃ



" The Foundation, which was already working towards the welfare of waste pickers had set up several water purifiers across ward offices of the Brihan mumbai Municipal Corporation thereby helping 12,000 cleaners gain access to clean drinking water everyday. However this was just the first step. I realised there was a lot more to be done. I launched the 'Caring for the Cleaners' Initiative in 2019 solely aimed at uplifting the lives of rag pickers" সঞ্জনা জানিয়েছেন।


সঞ্জনার এই সংস্থাটি মুম্বাইয়ের অতিবৃষ্টি ও ঝড়ের কথা মাথায় রেখে প্রায় ২০০ জন সাফাইকর্মীদের রেইনকোট ও গাম্বুট প্রদান করেছে। কারণ প্রাকৃতিক দুর্যোগের মধ্যেও অনেকক্ষেত্রে সাফাইকর্মীদের জীবনের ঝুঁকি ও চরমতম অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে মধ্য দিয়েও কর্মপ্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হয়।


"This is only the beginning. I want to do a lot more for the welfare of cleaners in India. My Immediate plan is to raise funds to provide medical Insurance since many of the Ragpickers tend to fall I'll often, may be because they work in such unhygienic conditions"


পড়ুনঃ


Read more from this writer.