• Blogtog

প্রতিদিন ভেনেজুয়েলার দেড়শ শরণার্থীর খাবারের ব্যবস্থা করেন ইকিউডারের এই মহিলা


Maria del Pilar Figueroa

ভেনেজুয়েলার নাম তো আমাদের কাছে ভীষণ পরিচিত। ফুটবলের দেশ। কিন্তু তার সাথে আর একটি ব্যাপারেও উল্লেখযোগ্য হয়ে উঠেছে লাতিন আমেরিকার এই দেশটি।


প্রায় দেড় মিলিয়ন ভেনেজুয়েলার মানুষ এখন বাস্তুহারা। মুলত তাদের রাজনৈতিক এবং অর্থনৈতিক অস্থিরতার কারণে।

ইকুয়েডার, মেক্সিকো বা পেরুর সাথে সাথে তাদের বেশিরভাগেরই ঠিকানা ভেনেজুয়েলার নিকটবর্তী সীমানা- ‘কলোম্বিয়া’। ইউরোপ এবং ভারত সহ বহুদেশ বর্তমানে ইমিগ্রেন্ট সমস্যায় জর্জরিত। কিছু কিছু দেশ প্রকাশ্যেই নাকাচ করে দিচ্ছে বহিরাগতদের অনুপ্রবেশ। কিন্তু সেই অবস্থায় দাঁড়িয়ে কলোম্বিয়া সৃষ্টি করেছে এক নতুন দৃষ্টান্ত।



প্রতিদিন সাড়ে তিন মিলিয়ন মানুষ আসছে ভেনেজুয়েলা থেকে কলোম্বিয়া

প্রায় ২০০ কিমি পায়ে হেঁটে আসা ভেনেজুয়েলার ইমিগ্রেন্টদের জন্যে, কলোম্বিয়ার সীমান্ত গ্রামগুলোতে বানানো হয়েছে ক্যাম্প। ঠাণ্ডার কথা মাথায় রেখে ব্যবস্থা করা হয়েছে কম্বলের।


কলম্বিয়ার Maria del Pilar Figueroa, হয়তো এক্ষেত্রে মারিয়ামের স্বরুপ। তিনি বসবাস করেন একদম সীমান্তগ্রামে যেখানে বহিরাগতের আগমন সবচেয়ে বেশি। লক্ষ লক্ষ মানুষকে প্রতিদিন তার বাড়ির সামনে দিয়ে কষ্ট করে হেঁটে যেতে দেখে তিনি নিয়েছেন এক দৃষ্টান্তমূলক সিদ্ধান্ত।


পড়ুনঃ




তার বাড়িকে তিনি করে ফেলেছেন ভেনেজুয়েলার মানুষদের বিশ্রামগার। দুই সন্তানকে সাথে নিয়ে প্রতিদিন তিনি আয়োজন করছেন ১৫০ শরণার্থীর খাবার।


ভেনেজুয়েলার শরণার্থীদের জন্যে কলোম্বিয়া র একটু হলেও উপহার দিতে পারছে খানিক রঙিন পৃথিবী।


কৃতজ্ঞঃ আল-জাজিরা

  • Facebook
  • Twitter
  • YouTube
  • Instagram

©2019 by Blogtog.