• Blogtog

'ক'-এ কলা, 'ব'-এ ব্যানানা। কলার ভাইরাল রচনা।



দয়াল বাবা কলা খাবা,গাছ লাগায়া খাও— কিন্তু কি কলা?

কলার সাইজ,পুষ্টিগুন সব বুঝে নিয়ে তবেই না সঠিক কলা নির্বাচন করতে হয়। কলা বলে তাই হ্যালা ফেলা করবেন না। কলার ও অনেক ছলাকলা আছে। কলা মাত্রেই যে আটারলি বাটারলি ডেলিইশাশ হবে তা কিন্তু এক্কেবারেই নয়।


তবে গড়পড়তা অধিকাংশ কলাই স্বাদে মিস্টি (কাঁচকলা ব্যতিরেকে )। বিচি থাকা বা না থাকার উপর কলার আভিজাত্য খাদক সমাজে ওঠা-নামা করে। আর পাকা কলা মাত্রেই বেশ গদগদে হলদে টাইপ রঙ হবে,এটাই মনে হয়। সবুজও হয় বটে,তবে সেগুলি ব্যতিক্রমী সিঙ্গাপুরী কলা ,যার উজ্জ্বল উপস্থিতি শীতকালে ইস্কুলের স্পোর্টসে কিম্বা পিকনিকের পাউরুটি আর ডিম সিদ্ধর সাথে। তবে খেতে কিন্তু কলা, কলারই মতন।


পড়ুনঃ


এবার ধরুন এই স্বাদে বদলা নয়,বদল এল! ফ্লেবারটাই বদলে গেল। কলা খেতে কলার মতন হল না। তবে কলা খাবো কেন? কেবল মিনারেল আর ভিটামিনের রেশন শরীরে ভরে নিতেই যদি খেতে হয় তবে কলা খাওয়ার বেশ ইয়ে ইয়ে ব্যাপারটা কোথায় গেল? অন্য স্বাদের কলা, খেতে পারি,কিন্তু কেন খাবো?—খাবো,কারন কলাটি ভ্যানিলা ফ্লেভারের।



Blue Java Banana


এতে লজ্জায় লাল হয়ে ওঠার কিছু নেই,কারন কলাটি নীল। সাউথ ইষ্ট এশিয়ায় দেখা মেলে এই নীলবর্ণের কলা। নাম তার “ব্লু জাভা ব্যানানা”। আসলে এটি মুসা অ্যাকুমিনাটা আর মুসা বালবিসিয়ানার ট্রিপলয়েড হাইব্রিড। পাকলে স্বজাতীয় দের মতন গায়ে হলুদ লাগলেও,কাঁচা অবস্থায় ওমন মোহনীয় নীল রঙের কলা সচারচর দেখা মেলে না।


সবচেয়ে বড় কথা স্বাদ! ঠিক যেন আইসক্রীম।


পড়ুনঃ


Read More from this writer.

  • Facebook
  • Twitter
  • YouTube
  • Instagram

©2019 by Blogtog.