• Blogtog

১৯১৩ সালে সমারসেটে ব্লাকার খুঁজে পেলেন হবহু আরেক মোনালিসা


ইজেলওর্থ মোনালিসা


১৯১৩ সালে সমারসেটের এক ম্যানর হাউসে হু ব্লাকার খুঁজে পেলেন মোনালিসার যমজ বোন। সেটিকে তিনি এনে রাখলেন, ওয়েস্ট লন্ডনের ইজেলওর্থে নিজের স্টুডিওতে।ছবিটির নাম রাখা হল “ইজেলওর্থ মোনালিসা”।


এক মনোগ্রামে ব্লাকারের স্টেপ ফাদার দাবী করলেন এটিও নাকি লিওনার্দো দ্য ভিঞ্চির আঁকা। এরপরেই মোনালিসার যমজ বোন পাড়ি দিল ইতালি।পরবর্তীতে হেনরি পুলিতজার ছবিতি কিনলেন এক অকসান থেকে।


তাঁর মতেও ছবিটা লিওনার্দো দ্য ভিঞ্চিরই আঁকা। শুধু তিনিই নন পল কনডি,জন এরি, এলফ্রেদো ভেঞ্চুরি মতন অনেকেই মনে করতেন এটিও দ্য ভিঞ্চির মোনালিসা। জর্জিও ভাসারি ছিলেন দ্য ভিঞ্চির জীবনীকার। তিনি লিখেছিলেন ১৫০৩ সালে শুরু করা মোনালিসার একটি ছবি অসমাপ্ত অবস্থায় রেখে দেন লিওনার্দো। ১৫১৭ নাগাদ অন্য আর একটা ছবি আঁকেন - সার্টেন ফ্লরেনটাইন লেডি। লিওনার্দোর মৃত্যুর পর ওই ছবিটিই স্থান পায় ফ্রান্সের লুভের মিউজিয়ামে।দুটো ছবির মধ্যে বিস্তর মিল।তবুও দ্বিমত থাকবে না হয় নাকি! অনেকেই মানতে নারাজ এই ছবি দ্য ভিঞ্চির আঁকা। পড়ে ফেলুন জেনি কোহেনের “Has the Original Mona Lisa Been Found?”।


রহস্যের গন্ধ পাচ্ছেন তো? এখানেই শেষ নয় কিন্তু।এমন যমজ ছবি আরও আছে। যেমন লিওনার্দোরই ভার্জিন অব রকস, এঞ্জেলোর সাপার এট ইমাউস, এডওয়ার্ড মুঙ্কের দ্য স্ক্রিম- সব ছবিরই যমজ আছে।


এমন আরও কিছু ব্লগ

  • Facebook
  • Twitter
  • YouTube
  • Instagram

©2019 by Blogtog.