• Facebook
  • Twitter
  • YouTube
  • Instagram

Get Blogtog updates on the go

We dont Spam or play with your data

©2019 by Blogtog.

  • Blogtog

মিঞা তানসেন তাঁর সঙ্গীতের দ্বারা নিরাময় করেছেন বহু দূরারোগ্য ব্যাধি


রামতনু পাণ্ডে থেকে তিনি হয়ে ওঠেন তানসেন

মিঞা তানসেন তাঁর সঙ্গীতের দ্বারা বহু দূরারোগ্য ব্যাধির নিরাময় করেছেন বলেও শোনা যায়- তানসেনের ইতিহাস

গান জানি বা না জানি, গান শুনি বা না শুনি, একটা নাম আর একটা গল্প কিন্তু সব্বার মুখে মুখে ঘুরতে ঘুরতে আজ প্রচলিত হয়ে গেছে। বুঝলেন না?

আরে ওই তানসেন এর গান গেয়ে বৃষ্টি নামানোর কথা বলছি। হ্যাঁ, শাস্ত্রীয় সঙ্গীত সম্বন্ধে জানার পরিধি আজকালকার দিনে খুবই সীমিত বটে ঠিক যেমন শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের শ্রোতার সংখ্যা, কিন্তু তানসেন এমনই এক ব্যাক্তিত্ব যাঁর নাম বড্ড চেনা। আর হবে নাই বা কেন, শাস্ত্রীয় সঙ্গীতে তাঁর অবদান শাস্ত্রীয় সঙ্গীত কে বড়োই সমৃদ্ধ করে তুলেছে। তাঁর সঙ্গীতের মাধ্যমে দীপক রাগে অগ্নি, মেঘ রাগে বর্ষার সঞ্চার ঘটতো বটে, আবার আজকালকার Music Therapy কিন্তু মোটেই নতুন নয় মিঞা তানসেন তাঁর সঙ্গীতের দ্বারা তৎকালীন সময়ে বহু দূরারোগ্য ব্যাধির নিরাময় করেছেন বলেও শোনা যায়।তবে তাঁর আসল নাম কিন্তু আমাদের অনেকেরই জানা নেই,অথবা কেনই বা তাঁর নাম তানসেন হলো তাও জানা নেই।


জন্মের সময় তাঁর নাম রাখা হয়,রামতনু পাণ্ডে, অর্থাৎ জন্মে ছিলেন হিন্দু পরিবারে।তাঁর স্ত্রী প্রেমকুমারী দেবী ছিলেন মারাঠী সারস্বত ব্রাহ্মণ। কিন্তু সামাজিক অত্যাচারে তাঁর পূর্বপুরুষ মুসলমান ধর্ম গ্রহণ করেন তাই তাঁর সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার জন্য রামতনু ও মুসলমান ধর্ম গ্রহণ করেন এবং তাঁর নাম হয়-আতা আলী খাঁ।


পড়ুনঃ সত্যজিতের মতে হলিউডে অভিনয় করলে নির্দ্বিধায় অস্কার পেতেন-ট্রাজেডিক আর বিস্মৃত নায়ক তুলসী চক্রবর্তী


রেওয়ার অন্তর্গত বন্ধগড়ের রাজা রামচাঁদ বাঘেলা একবার বৃন্দাবনে আতা আলী-র গান শুনে মুগ্ধ হয়ে তাঁর গুরুর অনুমতি নিয়ে তাঁকে নিজের দরবারে নিয়ে আসেন, এবং সভাগায়ক হিসেবে নিযুক্ত করেন।



একদিন মুঘল সম্রাট আকবর সেই দরবারে আতা আলী খাঁ এর সঙ্গীতের জাদুতে মুগ্ধ হয়ে পড়েন এবং তাঁকে নিয়ে আসেন নিজ দরবারের সভাগায়ক হিসেবে।এরপর থেকে সকাল-সন্ধ্যা-দরবার সমস্ত জায়গাতেই সম্রাটের সর্বক্ষণের সঙ্গী ছিল তাঁর সঙ্গীত।

সম্রাট আকবর একদিন সভায় আতা আলী খাঁ এর সুরের মূর্চ্ছনায় প্রসন্ন হয়ে নিজের গলার রত্ন মালা খুলে দান করেন এবং তাঁকে তানসেন উপাধীতে ভূষিত করেন।


এইভাবে রামতনু পাণ্ডে থেকে তিনি হয়ে ওঠেন তানসেন।